নরসিংদীতে কন্যা ধর্ষণের দ্বায়ে পিতা গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২১

নরসিংদীতে কন্যা ধর্ষণ মামলার আসামি পিতা বাদল গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। গ্রেপ্তার বাদল নরসিংদীর আড়াইহাজারের সিংহদী গ্রামের বাসিন্দা মো. সোবানের ছেলে।

বুধবার দুপুরে নরসিংদী ক্যাম্প প্রাঙ্গনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সিপিএসসি কোম্পানী কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মো. তৌহিদুল মবিন খান বলেন, মো. বাদল দীর্ঘদিন যাবৎ তার নিজ বসতঘরে বাক প্রতিবন্ধী সৎ মেয়েকে(১৯) প্রতিনিয়ত জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আসছিল।

সর্বশেষ গত ১৫ মার্চ ২০২১ রাত ১ টায় ওই প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে ধর্ষিতা ও তার ছোট বোনের চীৎকারে ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ পায়। ডাক্তারী পরীক্ষায় প্রতিবন্ধী মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা প্রমানিত হয়।

এ ব্যাপারে ভিকটিম ধর্ষিতার মামা বাদী হয়ে নারী ও শিশু দমন আইন-২০০০(সংশোধন-০৩) এর ৯(১)/৯(৪)(খ) তৎসহ ৫০৬ দঃ বিঃ ধারায় আড়াইহাজার থানার একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং -১৪।

মামলার পর থেকে আসামি পলাতক ছিল। দীর্ঘদিন গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে বাদলের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে ৮ জুন-২০২১ মঙ্গলবার বিকেলে রূপগঞ্জ থানার বরফা কেরাম বোর্ডের মোড় এলাকা থেকে র‌্যাব-১১ এর আভিযানিক দল তা গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

পরবর্তী আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করার জন্য তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।