ভোলায় নজর কেড়েছে এক টন ওজনের ‘লালু’

প্রকাশিত: জুলাই ১৯, ২০২১

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে ভোলায় সবার দৃষ্টি কেড়েছে প্রায় এক টন ওজনের ষাঁড় ‘লালু’। লালুকে কিনতে দূর-দূরান্ত থেকে আসছেন অনেকেই। মালিক দাম হাঁকছেন ৬ লাখ।

দুই বছর আগে এক বছর বয়সী হলিস্টিন ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড় ‘লালু’কে ক্রয় করেন খামারি গালিব ইবনে ফেরদৌস। কেনার পর এটিকে সম্পূর্ণ দেশিয় পদ্ধতিতে মোটাতাজা করার প্রক্রিয়া শুরু করেন তিনি। লালুর খাবারের চাহিদা মেটানোর জন্য বাড়ির পাশে একটি দুই একর ঘাসের জমিও করেছেন। ৫ ফুট ৮ ইঞ্চি ও লম্বায় ১০ ফুট উচ্চতার লালুর ওজন এখন প্রায় ১০০০ কেজি।

খামারি জানান, এটার দাম নির্ধারণ করেছি ৬ লাখ টাকা। অনেকেই কিনতে আসছে কিন্তু দামের সাথে সামঞ্জস্য না হওয়ায় এখনও বিক্রি হয়নি।

লালু ছাড়াও গালিবের খামারে এখন বিভিন্ন জাতের ২৩ গাভী রয়েছে। এর মধ্যে ৮টি নিয়মিত দুধ দেয়। এছাড়া ৭ থেকে ১২ মাস বয়সি আরো ১৫টি বাছুরও আছে।

“লালু” কে লালন-পালনে কোনো ধরনের স্টেরয়েড ব্যবহার করা হয়নি বলে জানালেন প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের চিকিৎসক। জেলার প্রাণিসম্পদ কার্যালয় ভেটেনারি সার্জন ডা. শাহীন মাহামুদ বলেন, ‘কাঁচা ঘাস, ইউরিয়া মোলাসেসসহ দেশীয় পন্থায় এটি লালন পালন করা হয়েছে। কোন ধরনের ক্ষতিকর ঔষধ ব্যবহার করা হয়নি।’

ঈদুল আজহা উপলক্ষে জেলায় এবার ১ লাখ ৬ হাজার ৯৫৪টি গবাদিপশু প্রস্তুত করা হয়েছে।

(ডিবিসি)