নিউ ইয়র্কে বারবিকিউ পার্টিতে বাংলাদেশিদের মধ্যে মারামারি

প্রকাশিত: আগস্ট ৫, ২০২১

‘জ্যাকসন হাইটস এলাকাবাসী’ সংগঠনের আয়োজনে এক বারবিকিউ পার্টিতে নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে তর্কাতর্কি ও হাতাহাতির একপর্যায়ে পুলিশ এলেও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। দেশটির ওয়ার্ল্ড ফেয়ার মেরিনা রেস্টুরেন্টে ৪ আগস্ট রাতে এ ঘটনা ঘটে। বিকেল থেকে শুরু হওয়া এই বারবিকিউ পার্টি চলে মধ্যরাত পর্যন্ত।

যাদের মধ্যে মারামারি হয়েছে তারা হলেন, জসি চৌধুরী, লিটু চৌধুরী, মো. তুহিন, তানভীর বাবু, নমি আলম, মুক্তা রহমান, দুলাল মিয়া, জাহাঙ্গীর, সায়েম ও শহীদ।

মারামারি প্রসঙ্গে লিটু চৌধুরী বলেন, আমি আমার স্ত্রীসহ রেস্টুরেন্টের ভেতরে খাওয়া-দাওয়া করছিলাম। এ সময় জসি চৌধুরী এসে মাদারফাকার বলে সবাইকে গালাগালি করে বের হয়ে যেতে বলে। আমি তখন তাকে বললাম ভাই পরিবার নিয়ে এসেছি।

লিটু চৌধুরী বলেন, জসি ভাই আপনার এই ধরনের গালিগালাজ করা ঠিক হয়নি। সে তখন আরও অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে। একপর্যায়ে বাইরে এলে সে আমাকে চড় মারে। অতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে এই ঘটনাগুলো ঘটেছে বলে আমার ধারণা।

মো. তুহিন বলেন, রফিক বিফ স্টেক তৈরি করেছিলেন, সবাই লাইনে থাকলেও তানভীর বাবু লাইন ভঙ্গ করে খাবার নিতে চাইলে আমি বাঁধা দেই। তাতে সে আমার সঙ্গে উদ্ধতপূর্ণ আচরণ করে। এক পর্যায়ে সন্তানের সামনে সে আমাকে ধাক্কা দেয়। আমি আমার ছেলের সামনে মারামারি না করে পুলিশ এ কল দেই পুলিশ আধা ঘণ্টার মধ্যে ঘটনাস্থলে আসে। অভিযুক্তদের তখন পুলিশ ঘটনাস্থালে পায়নি।

জানা গেছে, অন্য তিনটি ঘটনার দুইটি খাবার কেন্দ্রিক হলেও একটি ছিল সিনিয়র-জুনিয়র সমস্যা। সিনিয়র জাহাঙ্গীর মিয়াকে জুনিয়র দুলাল নাম ধরে ডাকলে তাদের মধ্যে তর্কাতর্কি ও হাতাহাতি হয়।

‘জ্যাকসন হাইটস এলাকাবাসীর’ সভাপতি সাকিল মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক মো. আলম নমি এর নেতৃত্বে এই বারবিকিউ পার্টি আয়োজন করা হয়েছিল। বারবিকিউ পার্টিতে অন্তত আড়াইশ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।