স্পেনে ভয়াবহ দাবানল : বাড়িঘর ছেড়ে পালাচ্ছে মানুষ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১

টানা পাঁচ দিন যাবত ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে স্পেনের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আন্দালুসিয়ার বিস্তীর্ণ বনাঞ্চল। প্রাণ বাঁচাতে বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালাচ্ছেন সেখানকার বহু লোক। দমকা বাতাসের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খেতে হচ্ছে দমকল কর্মীদের।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবর অনুযায়ী, দাবানল নিয়ন্ত্রণে আনতে রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সেনাবাহিনীকে নামাতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন। যদিও এতে পরিস্থিতির তেমন কোনো উন্নতি হয়নি বরং খারাপের দিকে যাচ্ছে।

বুধবার থেকে শুরু হওয়া এই দাবানলে এখন পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ছয় হাজার হেক্টর বনভূমি। এভাবে চলতে থাকলে আগামী কয়েক দিনে দ্বিগুণ হতে পারে বলে শঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। শুধু তাই নয়, কমপক্ষে দুই হাজার মানুষকে বনভূমির পার্শ্ববর্তী শহরগুলো থেকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে দিতে হয়েছে।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) প্রশাসন জানিয়েছে, ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কায় জুব্রিক শহর থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে প্রায় ৫০০ অধিবাসীকে। পর্যটনের জন্য বিখ্যাত শহর এস্তেপনা থেকে সরানো হয়েছে এক হাজার বাসিন্দাকে।

আন্দালুসিয়ার আঞ্চলিক বনাঞ্চলের দমকল বিভাগ বলছে, দাবানল মোকাবিলায় সাড়ে তিনশ’ দমকল কর্মী কাজ করে যাচ্ছেন। ৪১টি আগুন নেভানো সাহায্যকারী বিমান ও ২৫টি গাড়ি কাজ করে যাচ্ছে। এ দিকে আগুনে দগ্ধ হয়ে ৪৪ বছর বয়সী এক দমকলকর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় পরিবেশ দফতরের কর্মকর্তা কারমেন ক্রেসপো মিডিয়াকে জানিয়েছেন, সম্ভবত এই আগুনের পেছনে মানুষের হাত রয়েছে। আন্দালুসিয়ার আঞ্চলিক প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ঠিক কী কারণে আগুনের সূত্রপাত, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।