১০-১২ নভেম্বর শুরু হতে পারে এসএসসি পরীক্ষা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১

চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষা আগামী ১০-১২ নভেম্বরের মধ্যে যেকোনো দিন শুরু করা হতে পারে। পরীক্ষা শুরুর ১৫ দিন আগে সময়সূচি (রুটিন) প্রকাশ করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

আন্তঃশিক্ষা সমন্বয়ক বোর্ড সূত্র জানায়, ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষা আয়োজন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। পরীক্ষার জন্য প্রশ্নপত্র ছাপার কাজ শেষ হয়েছে। চলতি সপ্তাহে প্রশ্নপত্র জেলা পর্যায়ে পাঠানো হবে।

সূত্র জানায়, আগামী ১০ থেকে ১২ নভেম্বরের যেকোনো দিন থেকে পরীক্ষা শুরু করতে চায় শিক্ষা বোর্ডগুলো। যেহেতু ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে, সেহেতু উল্লেখিত সময়ের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষা শুরু করলে পরবর্তী এক মাসের মধ্যে এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব হবে।

জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতির কারণে নির্ধারিত সময়ে পরীক্ষা আয়োজন করা সম্ভব না হওয়ায় গ্রুপভিত্তিক তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা নেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন বাছাইয়ের সুযোগ বাড়ানো হবে। আগে ১০টি প্রশ্নের মধ্যে ৭-৮টির উত্তর দিতে হলেও এবার সেখানে চারটির উত্তর দিতে বলা হবে।

এদিকে, স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে কেন্দ্রের বেঞ্চগুলোতে ইংরেজি বর্ণ ‘জেড’ আকারে বসানো হবে পরীক্ষার্থীদের। কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী, শিক্ষকসহ সবাইকে মাস্ক পরে ঢুকতে হবে। প্রবেশের ফটকে রাখা হবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। শিক্ষক ও পরীক্ষার্থীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চালাতে হবে যাবতীয় কার্যক্রম।

আন্তঃশিক্ষা সমন্বয়ক বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক নেহাল আহমেদ দেশের একটি গণমাধ্যমকে বলেন, আগামী ১০, ১১ বা ১২ নভেম্বর থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরুর চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। এ সময়ে এসএসসি পরীক্ষা শুরু করতে পারলে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে। পরীক্ষা শেষে পরবর্তী এক মাস পর ফল প্রকাশ করা হবে। এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে চলতি সপ্তাহে পরীক্ষা শুরুর দিন চূড়ান্ত করা হবে।

তিনি বলেন, যেহেতু চলতি বছরের মধ্যে ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা শেষ করতে হবে। সে কারণে পরীক্ষা শুরু ও ফলাফল প্রকাশের জন্য আমরা হিসাব-নিকাশ করছি। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সম্মতি দিলে আগামী ১০ থেকে ১২ নভেম্বরের যেকোনো দিন এসএসসি পরীক্ষা শুরু করা হবে।

ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এস এম আমিরুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতি বছরের এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে। এজন্য কেন্দ্রগুলোর জন্য বিশেষ কিছু নির্দেশনা দেওয়া হবে। আমরা পরীক্ষা আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। শিক্ষা মন্ত্রণালয় যখন ঘোষণা দেবে, তখন পরীক্ষা নেওয়া হবে।

স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে পরীক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানো হবে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু সংক্ষিপ্ত আকারে তিন বিষয়ের পরীক্ষা হবে এবং বিভাগভিত্তিক সকাল-বিকেল পরীক্ষার আয়োজন করা হবে, সেহেতু এসএসসির জন্য কেন্দ্র বাড়ানোর প্রয়োজন হবে না।